মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

আমাদের অর্জনসমূহ

আমাদের অর্জনসমূহ এবং চ্যালেঞ্জ

 

  • সাম্প্রতিক বছরসমূহের ( বছর) প্রধান অর্জনসমূহঃ  

যে কোন দূর্যোগ দূর্ঘটনায় প্রথম সাড়া দানকারী সেবাধর্মী প্রতিষ্ঠান হিসেবে গতি, সেবা ও ত্যাগের মূলমন্ত্রে উজ্জীবিত হয়ে  ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স বিভাগের কর্মীরা দিন-রাত চব্বিশ ঘন্টা মানুষের সেবায় নিয়োজিত। জনগণের দোড়গোড়ায়  এ অধিদপ্তরের সেবা পৌঁছে দেয়ার লক্ষ্যে বৃহ্ত্তর পাবনা জেলায় ইতোমধ্যে ১৪ টি ফায়ার স্টেশন চালু রয়েছে এবং ০৭ টি ফায়ার স্টেশন স্থাপনের কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

  • বৃহত্তর পাবনা জেলার আওতাধীন বিভিন্ন ফায়ার স্টেশন কর্তৃক ২০১৫-১৬ অর্থবছরে ৭০২ টি,  ২০১৬-১৭ অর্থবছরে ৭৮৪ টি ও ২০১৭-১৮  অর্থবছরে ৫৩০ টি অগ্নিনির্বাপণের ফলে মোট ১৩৭,৪৫,৭৭,০০০ কোটি টাকার সম্পদ উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে।
  • অত্র দপ্তরের আওতাধীন স্টেশনসমূহ কর্তৃক যে কোন দুর্ঘটনা তাৎক্ষণিক মোকাবেলার জন্য দুর্ঘটনাপ্রবণ (02 টি)পয়েন্টে নিয়মিত টহল ডিউটি পরিচালনা করা হচ্ছে। যার  ফলে অগ্নি-দুর্ঘটনাসহ যে কোন ধরনের দুর্ঘটনায় অতি দ্রুত সাড়া প্রদান করায় জান-মালের ক্ষয়ক্ষতির পরিমান অনেকাংশে হ্রাস পেয়েছে।
  • উল্লেখযোগ্য কার্যক্রমের মধ্যে রয়েছে ১৯/০৭/২০১৫ খ্রিঃ তারিখ মুলিবাড়ী, সয়দাবাদ, সিরাজগঞ্জ এবং ০৯/০১/২০১৬ খ্রিঃ তারিখ যমুনা সেতুর উপরে সংঘটিত সড়ক দূর্ঘটনায়  উদ্ধার কার্যক্রম পরিচালিত হয়। এ ০২ টি দূর্ঘটনায় মোট ২৪ জন নিহত এবং ৭৪ জন আহত উদ্ধার করা হয়। ০৪/০৪/২০১৭ খ্রিঃ তারিখ চিনাখড়া, চরগবিন্দপুর, দুলাই, পাবনায় টর্নেডোর আঘাতে ১৩০ জন  আহত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়।
  • অত্র দপ্তরের কর্মীদের মনোবল এবং পেশাগত দক্ষতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে অত্র দপ্তরের আওতাধীন বিভিন্ন ফায়ার স্টেশন হতে কর্মকর্তা/কর্মচারীদের রাজশাহী বিভাগীয় সদর দপ্তরে অগ্নি-নির্বাপণ, উদ্ধার ও প্রাথমিক চিকিৎসা বিষয়ক প্রশিক্ষণসহ বিভিন্ন ধরনের বহুমাত্রিক সমস্যার মধ্যে বহুতল ও বাণিজ্যিক ভবনের অগ্নি নির্বাপণের জন্য অত্র বিভাগে ব্রেভহার্ট কোর্স, এমএফআর ও সিএসএসআর কোর্স চলমান আছে।
  • ভূমিকম্পসহ যে কোন দুর্ঘটনায় উদ্ধার কাজ করার জন্য রিজার্ভ টিম এবং স্পেশাল ফায়ার ফাইটিং, ওয়াটার রেসকিউ টিম গঠন করা হয়েছে।
  • এছাড়াও ভূমিকম্প পরবর্তী উদ্ধারকাজে সহযোগিতা করার জন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও অন্যান্য এন জি ও এর সহযোগিতায় স্থানীয় বাসিন্দাদের প্রশিক্ষণের মাধ্যমে ভলান্টিয়ার তৈরীর কার্যক্রম চলমান আছে। ইতোমধ্যে 150 জন কমিউনিটি ভলান্টিয়ার তৈরি করা হয়েছে।
  • অত্র দপ্তরের অগ্নিনির্বাপণ খাতে ২০১৫-২০১৬ অর্থ বছরে 08 লক্ষ, ২০১৬-২০১৭ অর্থ বছরে ০৯ লক্ষ ও ২০১৭-২০১৮ অর্থ বছরে ০৬ লক্ষ  টাকা রাজস্ব আদায় করা হয়েছে।

 

  • সমস্যা এবং চ্যালেঞ্জসমূহঃ

            শহর এলাকায় অগ্নি নির্বাপণের জন্য পর্যাপ্ত পানির অভাব, হাইড্রেন্ট ব্যবস্থা না থাকা, ট্রাফিক জ্যাম, অপ্রশস্থ রাস্তাঘাট। পাবনা শহরে বহুতল ভবন নির্মাণ হচ্ছে কিন্তু বহুতল ভবনে অগ্নি-দূর্ঘটনা মোকাবেলা করার টি.টি.এল বা স্নোরকেল নেই। তাছাড়া বিএনবিসি অনুযায়ী বহুতল ভবন তৈরী না করায় সংশ্লিষ্ট ভবনের উদ্ধার কার্যক্রম ও অগ্নি-নির্বাপণে বিঘ্ন সৃষ্টি হয়। হাইওয়ে সড়ক দূর্ঘটনা মোকাবেলা করার জন্য রেকারভ্যানসহ অত্যাধুনিক সাজ-সরঞ্জামাদির অভাব। বর্তমানে উপজেলা পর্যায়ে তৈরীকৃত ফায়ার স্টেশনসমূহে ২য় কল গাড়ী না থাকায় দূরবর্তী এলকায় পানিবাহী গাড়ী নিয়ে গমনে সমস্যা এবং সড়ক দূর্ঘটনা/ ভবন ধসে উদ্ধার কার্যে দ্রুত সাড়া প্রদানে প্রধান অন্তরায়। এছাড়া আধুনিক ও যুগোপযোগী উদ্ধার সরঞ্জামাদির স্বল্পতা, জনবল স্বল্পতা থাকায় অর্পিত দায়িত্ব সঠিকভাবে পরিচালনা ব্যাহত হচ্ছে।

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :

Facebook Twitter